ঢাকা ১১:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাটোরের গুরুদাসপুরে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ।

নয়ালোক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:০৪:৫০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৫১০৬ বার পড়া হয়েছে

গত ৬ সেপ্টেম্বর দেশের একটি জাতীয় পত্রিকার অনলাইনে ‘চিকিৎসকের বিরুদ্ধে একাধিক নারী কর্মচারীকে যৌন হয়রানীর অভিযাগ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ করেছেন গুরুদাসপুর উপজেলা সাস্থ্যকমপ্লেক্সের প.প কর্মকর্তা ডা.মো.মুজাহিদুল ইসলাম।

এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি বলেছেন, আমাকে জড়িয়ে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পুর্ণ ভুয়া, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমার দায়িত্বের বাহিরে কোন অনৈতিক কার্যক্রম আমি করিনা। সেই ক্ষমতা আমার নেই। সংবাদে বলা হয়েছে বিভিন্ন শ্রেণীর নারী কর্মচারীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ ছিলো আমার বিরুদ্ধে। আমার সাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোন স্টাফ এ ধরনের কথা বা বিবৃত দিতেই পারেনা না। আমি যদি এমন কাজ করে থাকি তাহলে অবশ্যই আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। মূলত আগামী এক মাসের মধ্যে আমার পদায়ন হবে। দীর্ঘদিন আমার দায়িত্ব ন্যায় ও সততার সাথে পালন করার জন্য কর্তপক্ষ আমাকে পদন্নতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমার কাছে অনৈতিক সুবিধা আদায় না করতে পেরে কিছু ব্যক্তি মিথ্যা সংবাদকর্মীকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমার কাছ থেকে চাঁদা নেওয়ার চেষ্টা করেছে। আমি প্রকাশিত সংবাদ এবং মিথ্যা তথ্য প্রকাশের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

 

ডাঃ মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম

প.প.কর্মকর্তা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স,

গুরুদাসপুর, নাটোর।

শেয়ার করুন :

আপলোডকারীর তথ্য

নাটোরের গুরুদাসপুরে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ।

আপডেট সময় : ০৯:০৪:৫০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

গত ৬ সেপ্টেম্বর দেশের একটি জাতীয় পত্রিকার অনলাইনে ‘চিকিৎসকের বিরুদ্ধে একাধিক নারী কর্মচারীকে যৌন হয়রানীর অভিযাগ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ করেছেন গুরুদাসপুর উপজেলা সাস্থ্যকমপ্লেক্সের প.প কর্মকর্তা ডা.মো.মুজাহিদুল ইসলাম।

এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি বলেছেন, আমাকে জড়িয়ে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পুর্ণ ভুয়া, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমার দায়িত্বের বাহিরে কোন অনৈতিক কার্যক্রম আমি করিনা। সেই ক্ষমতা আমার নেই। সংবাদে বলা হয়েছে বিভিন্ন শ্রেণীর নারী কর্মচারীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ ছিলো আমার বিরুদ্ধে। আমার সাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোন স্টাফ এ ধরনের কথা বা বিবৃত দিতেই পারেনা না। আমি যদি এমন কাজ করে থাকি তাহলে অবশ্যই আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। মূলত আগামী এক মাসের মধ্যে আমার পদায়ন হবে। দীর্ঘদিন আমার দায়িত্ব ন্যায় ও সততার সাথে পালন করার জন্য কর্তপক্ষ আমাকে পদন্নতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমার কাছে অনৈতিক সুবিধা আদায় না করতে পেরে কিছু ব্যক্তি মিথ্যা সংবাদকর্মীকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমার কাছ থেকে চাঁদা নেওয়ার চেষ্টা করেছে। আমি প্রকাশিত সংবাদ এবং মিথ্যা তথ্য প্রকাশের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

 

ডাঃ মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম

প.প.কর্মকর্তা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স,

গুরুদাসপুর, নাটোর।